1. admin@danikagonikontho.com : admin :
রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
লামা উপজেলা পরিষদের নবনির্মিত ভবন উদ্বোধন মণিরামপুরে ১০ বছর যাবৎ মাদ্রাসায় অনুপস্থিত থেকেও বেতনভাতা উত্তোলনের অভিযোগ এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে রায়পুরে ৫১০ পিস ইয়াবা সহ মাদক কারবারি গ্রেফতার মঠবাড়িয়ায় ৭১ তম বারুণী উৎসব শুরু এক সপ্তাহের মধ্যে কয়লা সংকট দূর হবে, উৎপাদনে যাবে রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র ভারতের প্রমোদতরী গঙ্গা বিলাস ও পর্যটকদের মোংলা বন্দরে অভ্যর্থনা বরিশালে সমাবেশ সফল করার লক্ষ্য নাজিরপুর উপজেলা বিএনপির লিফলেট বিতরণ মোংলা বন্দর চেয়ারম্যানের বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন কয়রায় মৎস্য ঘের দখলের চেষ্টা,প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন নাজিরপুর জেলা কারাগার থেকে বিএনপির ৩ নেতা-কর্মী জামিনে মুক্ত

কসবায় দেশের বৃহত্তম আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন- সিনিয়র সচিব মোঃ তোফাজ্জল হোসেন মিয়া

  • আপডেট সময় : শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ৮৩ বার পঠিত

লিয়াকত মাসুদ,ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ-
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় (০৯ এপ্রিল) শনিবার দুপুরে উপজেলার কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের পাশে খাড়েরা ইউনিয়নের মনকাশাইর নামক স্থানে ভূমি ও গৃহহীন ৪০০ পরিবারের জন্য নির্মাণাধীন আশ্রয়ণ প্রকল্প পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। তিনি নির্মাণাধীন এ আশ্রয়ণ প্রকল্পের অগ্রগতির কাজ পরিদর্শন করেন। কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদ উল আলম এসময় কাজের অগ্রগতি সিনিয়র সচিবকে অবহিত করেন।
প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সিনিয়র সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে জানান, গৃহহীনদের জন্য নির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অগ্রাধিকার ভিত্তিক প্রকল্প। কসবা উপজেলার মনকাশাইর গ্রামে নির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্পটি দেশের বৃহত্তম আশ্রয়ণ প্রকল্প। এখানে গ্রামীণ পরিবেশে ৪০০ পরিবার বাস করতে পারবে। এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি ব্যতিক্রম আশ্রয়ণ প্রকল্প। ১২.৩৫ একর জায়গার উপর নির্মিত এ আশ্রয়ণ প্রকল্পে বিদ্যালয়, খেলার মাঠ, মসজিদ, মন্দির, বাজার, পুকুর, কবরস্থান, গভীর নলকূপ ও বিদ্যুৎ এর ব্যবস্থা থাকবে। একসাথে এত সুযোগ সুবিধা বাংলাদেশের অন্য কোন আশ্রয়ণ প্রকল্পে দেখতে পাবেন না। তিনি জানান, আগামী জুলাই মাসের মধ্যে নির্মাণ কাজ শেষে এসকল ঘর গৃহহীনদের মধ্যে হস্তান্তর করা হবে। তিনি আরো বলেন, প্রতিটি পরিবারের জন্য দুই শতক জায়গার উপর দুই কক্ষ, একটি বারান্দা, একটি রান্নাঘর ও একটি টয়লেট সমৃদ্ধ গৃহ নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রত্যেকটি গৃহের নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে দুই লক্ষ ৫৯ হাজার ৫শত টাকা। তিনি আশ্রয়ণ প্রকল্পের নির্মাণ কাজ দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেন এবং স্থানীয় প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধিদের প্রতি এ আশ্রয়ণ প্রকল্পের কাজ সার্বক্ষণিক তদারকির জন্য নির্দেশনা দেন।
পরিদর্শনকালে সিনিয়র সচিবের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি, চট্রগ্রাম বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার মো. আশরাফ উদ্দিন, আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক (যুগ্ম সচিব) আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম, কসবা পৌরসভার মেয়র এম জি হাক্কানী, কসবা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মো. মনির হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফারহানা সিদ্দিকি, সহকারী কমিশনার (ভূমি) সঞ্জীব সরকার, উপজেলা প্রকৌশলী আবদুল কাদের মোজাহিদ, কসবা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আলগীর ভূইয়া, খাড়েরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. কবির আহাম্মদ খান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Dainik Agoni Kontho
Theme Customized By Theme Park BD