1. admin@danikagonikontho.com : admin :
রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ১১:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মুসলিম উম্মাহর শান্তির কামনার মধ্য দিয়ে শেষ হলো লক্ষ্মীপুরে ৩ দিনের সুন্নী এস্তেমা শরণখোলা শেখ কামাল আন্তঃ স্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস এর শুভ উদ্বোধন শরণখোলায় তাফালবাড়ী বাজারের দোকান পাট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা নাজিরপুর শাখারীকাঠী ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতার মৃত্যুতে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ উপনির্বাচনে সেচ্চাসেবক লীগ নেতা মনোনয়ন প্রত্যাশী কয়রায় ম্যানগ্রোভ ফ্যামিলি অব খুলনা ইউনিভার্সিটির কমিটি গঠন মঠবাড়িয়ায় বিএনপির শীতবস্ত্র বিতরণ মঠবাড়িয়ায় আ.লীগ নেতা ফজলুল হক মনিরের স্মরণে সভা অনুষ্ঠিত সুন্দর বনে বনবিভাগের অভিযানে বন্দুকের গুলি সহ হরিণ শিকারি আটক চট্টগ্রামে র‌্যাবের বিশেষ অভিযানে ৮ জন গ্রেফতার

মঠবাড়িয়ায় অজ্ঞাত লাশের পরিচয় সনাক্ত

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ৭৯ বার পঠিত

পঙ্কজ মিত্র,মঠবাড়িয়া(‌পি‌রোজপুর)প্রতিনিধি;-
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় উদ্ধার হওয়া অজ্ঞাত পরিচয়ের অর্ধগলিত লাশের পরিচয় সনাক্ত করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। নিহতের নাম মাকসুদুর রহমান (৫৮)। সে জামালপুর জেলার মাদারগঞ্জ থানার কয়ড়া গ্রামের মৃত সেকান্দার আলীর ছেলে। তিনি খুলনার বয়রা কর্মজীবী মহিলা হোস্টেট প্রকল্পে অর্থ বিভাগে চাকুরী করতেন। স্ত্রী ও ৩ সন্তান নিয়ে তিনি খুলনার খালিশপুরে বাসা ভাড়া থাকতেন। এদিকে নিহতের ভাই মোবারক হোসেন বাদী হয়ে রোববার বিকেলে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামী করে মঠবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মাকসুদুর রহমান গত ১৭ এপ্রিল সকালে খুলনার খালিশপুর এলাকার ভাড়া বাসা থেকে বের হয়ে কর্মস্থলে যান। বেলা দুইটায় অফিস শেষে তিনি বের হয়ে আর বাসায় ফেরেননি। তাঁর স্ত্রী পারভিন বেগম স্বামীর মুঠোফোন বন্ধ পেয়ে সম্ভাব্য স্থানে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পরদিন ১৮ এপ্রিল খালিশপুর থানায় একটি জিডি করেন। এর আগে গত শনিবার রাতে মঠবাড়িয়া থানা পুলিশ উপজেলার সূর্যমনি গ্রামের সৌদি প্রবাসী শুক্কুর শিকদারের নতুন বাড়ির ছনবন থেকে ওই ব্যক্তির অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করেন। এরপর পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) মৃত ব্যক্তির হাতের আঙুলের ছাপ সংগ্রহ করে নির্বাচন কমিশন থেকে পরিচয় সনাক্ত হয়ে খুলনার খালিশপুর থানায় যোগাযোগ করে। খালিশপুর থানা থেকে খবর পেয়ে মাকসুদুর রহমানের ছোট ভাই মোবারক হোসেন মঠবাড়িয়া থানায় গিয়ে পোশাক ও জুতা দেখে লাশ সনাক্ত করেন।

নিহতের ভাই মোবারক হোসেন বলেন, ‘আমার ভাইয়ের কোনো শত্রু ছিল না। কেন তাঁকে হত্যা করা হলো, বুঝতে পারছি না।’

মঠবাড়িয়া থানার ওসি মুহা. নূরুল ইসলাম বলেন, ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ওই ব্যক্তিকে কৌশলে মঠবাড়িয়ায় এনে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Dainik Agoni Kontho
Theme Customized By Theme Park BD