1. admin@danikagonikontho.com : admin :
শনিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে চোরাই মটর সাইকেল সহ গ্রেফতার -৫ চট্টগ্রামে কলেরার টিকা কার্যক্রমের তৃতীয় দিনে উপস্থিতির সংখ্যা কম মঠবাড়িয়ায় অবৈধ কারেন্ট জাল বিক্রয়কারি ৪ জনকে জরিমানা মঠবাড়িয়ায় মুজিব কেল্লা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন পিরোজপুর জেলা যুবদলের নবনির্বাচিত কমিটিকে নাজিরপুরে ফুলের মালা দিয়ে অভিনন্দন নাজিরপুর উপজেলা বিএনপির শতাধিক নেতা-কর্মী হাজিরা দিতে আদালতে নাজিরপুরে বিএনপির ৪৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত স্বন্দ্বীপে চিকিৎসকের অবহেলায় শিশুর মৃত্যু, বিচার বিভাগের তদন্তের দাবীতে মানববন্ধন মঠবাড়িয়ায় চালের তিন ডিলার বরখাস্ত নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ে ২টি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা

রায়পুরে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগ

  • আপডেট সময় : বুধবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২২
  • ৩০৫ বার পঠিত

পীরজাদা মোঃ মাসুদ হোসাইন, রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধিঃ
লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ড মাদ্রাসা-ই তাহফিজুল কুরআন মাদ্রাসার ২ য় শ্রেনীর ছাত্রকে ৭ বার শিক্ষক কর্তৃক বলাৎকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরেজমিন গিয়ে বলাকারকৃত ছাত্র ও তার বাবা মায়ের কাছ থেকে জানা যায়, সেপ্টেম্বর মাস থেকে মোট ৭ বার ঐ ছাত্রকে বলাৎকার করে শিক্ষক আব্দুর রশীদ(২৯)। সে ফরিদগঞ্জ উপজেলার বেগমগঞ্জ গ্রামের ক্বারী হোসাইন আহমদের ছেলে। বিগত ২ বছর যাবত সে এই মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। ছাত্রটি জানায়, বিভিন্ন সময় রাতে সবাই ঘুমিয়ে গেলে ঐ শিক্ষক তাকে তুলে নিয়ে তার কক্ষে নিয়ে গিয়ে মুখ ছেপে ধরে বলাৎকার করতো এবং মারের হুমকি দিয়ে বলতো বাবা মায়ের কাছে না বলার জন্য। ৭ বার বলাৎকারের পর ছাত্রটি অসূস্থ্য হয়ে পড়লে বাবা মায়ের কাছে সে গঠনাটি খুলে বলে। প্রধান শিক্ষক মাওলানা ওজায়ের হোসেনকে বললে তিনি ছাত্রটিকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করায় এবং কৌশলে অভিযুক্ত শিক্ষককে লিখিত স্বীকারোক্তি নিয়ে সরিয়ে দেন। এরপর অবিভাবকগন, এলাকাবাসী ও মাদ্রাসা কমিটির লোকজনকে গঠনাটি জানায়। আজ ১৬ নভেম্বর সন্ধা ৬ টায় খবর পেয়ে সাংবাদিকগন ও সহকারী পুলিশ সুপার রায়পুর সার্কেল আব্দুল্লাহ মোঃ শেখ সাদী এবং রায়পুর থানার অফিসার ইনচার্জ শিপন বড়ুয়া গঠনাস্থলে যান। জিজ্ঞাসাবাদে প্রধান শিক্ষক মাওঃ ওজায়ের হোসেন গঠনার সত্যতা স্বীকার করেন। পরে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রধান শিক্ষক মাওঃ ওজায়ের হোসেনকে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়। এ ব্যাপারে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুবেল প্রধানিয়া বলেন, গঠনার সত্যতা জেনেছি, অভিযুক্তদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানাই।
এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ওসি শিপন বড়ুয়া বলেন, গঠনা শুনে আমরা উক্ত মাদ্রাসায় গিয়েছি, অপরাধীদের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 Dainik Agoni Kontho
Theme Customized By Theme Park BD